বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৬ পূর্বাহ্ন

এই সরকার সম্পূর্নরুপে অমানবিক ও বাকশালী, বেগম জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবীতে সমাবেশে: মিনু

  • প্রকাশ সময় সোমবার, ৯ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৩২ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: অনির্বাচিত এই সরকারের প্রধানমন্ত্রী অমানবিক ও হিংসাপরায়ন। তিনি কখনো মানুষের কল্যাণ চাননা। তিনি তাঁর পরিবার ও আত্মীয়স্বজন নিয়েই ব্যস্ত। প্রতিটি ক্ষেত্রেই স্বজনপ্রীতি করে রেখেছেন। সরকার প্রধান নির্লজ্জের মত বক্তব্য প্রদান করছেন। তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মৃত্যু কামনা করছে। আসলে কারো অধিশাপে কেউ মরেনা বা কারো ক্ষতি হয়না। সৃষ্টিকর্তা কাকে কখন কি করবেন তিনিই একমাত্র জানেন বলে সোমবার বিকেলে নগরী ভূবনমোহনপার্কে বিএনপি রাজশাহী জেলা ও মহানগরের আয়োজনে সাবেক প্রধানমন্ত্রী, আপোসহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশ প্রেরণের দাবীতে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য মিজানুর রহমান মিনু এই কথাগুলো বলেন।

তিনি বলেন, এ অক্টোবর মাস হচ্ছে এই অনির্বাচিত সরকারের পতনের শেষ মাস। এই মাসেই সরকারের পতন ঘটানো হবে। এই সরকারকে ধর্ষনকারী, লুটেরা ও গণতন্ত্র ধ্বংসকারী আখ্যা দিয়ে তিনি আরো বলেন, এই সরকারের সোনার ছেলেরা ও এমপিরা শিশু থকে বৃদ্ধাদের উপরে পৈচাশিক নির্যাতন করছে। শুধু তাই নয় তাদের হত্যা করার পর টুকরা টুকরা করে নদীতে কিংবা মাটিতে পুতে রাখছে। এছাড়াও নিত্যপন্যের আকাশচুম্বি মূল্য বৃদ্ধি করে জনগণকে মহাবিপদে ফেলে দিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বেগম জিয়া মারাত্বক অসুস্থ। তাঁকে নিয়ে এই সরকার তামাসা করছে। তাঁকে বিদেশ নিয়ে চিকিৎসা করতে না দিয়ে তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে। বেগম জিয়ার কিছু হলে তার দ্বায় এই সরকারকেই নিতে হবে। দেশের জনগণকে বাঁচাতে বিএনপি ও সমমনাদলগুলো একদফা আন্দোলনে রয়েছে। এই আন্দোলণ ক্রমন্বয়ে তীব্র থেকে তীব্রত্বর হচ্ছে। আগামীতে ঘেরাও কর্মসূচীসহ হরতালের মত কর্মসূচী আসছে। সকল প্রকার আন্দোলনে রাজপথে থাকার জন্য বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীদের একটিভ ভাবে রাজপথে থাকার আহ্বান জানান তিনি। সেইসাথে বেগম জিয়ার নি:শর্ত মুক্তিসহ আটককৃত বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের নি:শর্ত মুক্তি দাবী করেন তিনি।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী মহানগর বিএনপি’র আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট এরশাদ আলী ঈশা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, রাজশাহী মহানগর বিএনপি সাবেক সভাপতি ও রাসিক সাবেক মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাহীন শওকত।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম মার্শাল ও রাজশাহী মহানগর বিএনপি’র সদস্য সচিব মামুন অর রশিদ মামুন। রাজশাহী জেলা বিএনপি’র সদস্য সচিব অধ্যাপক বিশ^নাথ সরকার ও রাজশাহী মহানগর বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক নজরুল হুদার সঞ্চালনায় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপি’র সদস্য দেবাশীষ রায় মধু, রাজশাহী জেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি ও সদস্য এডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন তপু, মহানগর বিএনপি’র যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন, ওয়ালিউল হক রানা, আসলাম সরকার, জয়নাল আবেদিন শিবলী, শাফিকুল ইসলাম শাফিক ও বজলুল হক মন্টু, জেলা বিএনপি’র সদস্য অধ্যাপক আব্দুর রাজ্জাক, শাহজাহান, রায়হানুল আলম রায়হান, গোলাম মোস্তফা মামুন, রোকনুজ্জামান আলম, তাজমুল তান টুটুল, আমিনুল হক মিন্টু, মকবুল হোসেন, মিজানুর রহমান মিজান, জাকিরুল ইসলাম বিকুল ও জেলা বিএনপি সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন উজ্জল।
এছাড়াও রাজশাহী মহানগর যুবদলের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সুইট, যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সভাপতি ও রাজশাহী মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান রিটন, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক মাসুদুর রহমান সজন, রাজশাহী মহানগর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক শরিফুল ইসলাম জনি, সদস্য সচিব রফিকুল ইসলাম রবি, জেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক ফয়সাল সরকার ডিকো, সদস্য সচিব রেজাউল করিম টুটুল, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক মীর তারেক, সদস্য সচিব আসাদুজ্জামান জনি ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক মাসুদুর রহমান লিটন, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আরফিন কনক ও সদস্য সচিব শাহরিয়ার আমিন বিপুল উপস্থিত ছিলেন।

আরো উপস্থিত ছিলেন কৃষক দল কেন্দ্রীয় কমিটির রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহী জেলা কৃষক দলের সাবেক আহ্বায়ক আল আমিন সরকার টিটু, রাজশাহী মহানগর কৃষক দলের আহ্বায়ক শরফুজ্জামান শামীম, জেলা কৃষক দলের আহ্বায়ক শফিকুল আলম সমাপ্ত, সদস্য সচিব আকুল হোসেন মিঠু, জেলা তাঁতী দলের আহ্বায়ক কুতুব উদ্দিন বাদশা, সদস্য সচিব হাসানুজ্জামান হাসান, মহানগর শ্রমিক দলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম পাখি, মহানগর তাঁতী দলের আহ্বায়ক আরিফুল শেখ বনি, মহানগর মহিলা দলের সভাপতি এডভোকেট রওশান আরা পপি, সাধারণ সম্পাদক সকিনা খাতুন, জেলা মহিলা দলের সভাপতি এডভোকেট সামসাদ বেগম মিতালী, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা রোমেনা হোসেন, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আকবর আলী জ্যাকি ও সাধারণ সম্পাদক খন্দকার মাকসুদুর রহমান সৌরভ, জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক শামীম আহম্মেদ ও সদস্য সচিব আলামিন এবং রাবি ছাত্রদলের আহ্বায়ক সুলতান আহম্মেদ রাহীসহ মহানগর ও জেলা থেকে আগত বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের হাজার হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থকবৃন্দ।

হাজার হাজার নেতাকর্মী বিক্ষোভ মিছিল সহকারে সমাবেশস্থলে উপস্থিত হন। তারা নগরীর বিভিন্নপ্রান্ত থেকে মিছিল নিয়ে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে সমাবেশস্থলে আসেন। সে সময়ে তারা সরকার পতনের জন্য নানা ধরনের স্লোগান দিতে থাকেন।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো নিউজ দেখুন
© All rights reserved © 2021 dailysuprovatrajshahi.com
Developed by: MUN IT-01737779710
Tuhin